রামপুরহাট এলাকায় শ্বশুরবাড়িতে গর্ভবতী গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ

রামপুরহাট এলাকায় শ্বশুরবাড়িতে গর্ভবতী গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ
Image source - সংবাদদাতা

এক গর্ভবতী গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ উঠল তার শ্বশুর বাড়ীর বিরুদ্ধে।  মৃতার নাম আবিদা খাতুন। তার পেটে সাত মাসের বাচ্চা আছে বলে জানিয়েছে মৃতার বাবার বাড়ীর লোকজন।

রবিবার রাত এগারোটার পর শ্বশুর বাড়ির পরিবার আবিদা খাতুন কে খুন করেছে বলে তার দিদি এবং বাবা  অভিযোগ করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে পাইকর থানার রুদ্রনগর পঞ্চায়েতের দারিয়াপুর গ্রামে। মৃতা গৃহবধূ আবিদা খাতুনের বাবা ডালিম শেখ বলেন ,আমার মেয়ের দশ মাস আগে বিয়ে হয়।


আমার জামাইয়ের সঙ্গে এক মহিলার অবৈধ সম্পর্ক আছে যার জন্য আমার মেয়েকে দেখতে পারত না ,কাল রাত সাড়ে নটার সময় আমার মেয়ের সঙ্গে ফোনে কথা হয়। তারপর রাত্রে সাড়ে এগারোটার পর খবর পাই আমার মেয়েকে খুন করা হয়েছে।

আমার বড় মেয়ে ওই গ্রামে চার বছর আগে বিয়ে দিয়েছি, বড় মেয়ে খুনের খবর পাই এবং সঙ্গে সঙ্গে ওই বাড়িতে খবর পেয়ে যায় তখন বড় মেয়ে গিয়ে দেখে কিছুক্ষণ আগেই তাকে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে।

পাইকর থানার পুলিশ মৃত দেহকে রামপুরহাট মেডিক্যাল হাসপাতালে পোস্টট মার্টেম এ পাঠায়। পাইকর থানার পুলিশ পরিবারের একজনকে গ্রেফতার করেছে  বাকি পলাতক এবং পুলিশ তদন্ত চলছে।


সংবাদদাতা : মহিউদ্দীন আহমেদ, রামপুরহাট

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য