ওয়ান-ডে ক্রিকেটে বিরাটের ধারাবাহিকতাকে অসাধারণ বললেও কম বলা হয়, মত গাভাসকরের

ওয়ান-ডে ক্রিকেটে বিরাটের ধারাবাহিকতাকে অসাধারণ বললেও কম বলা হয়, মত গাভাসকরের
Image source

দ্রুততম ব্যাটসম্যান হিসেবে মঙ্গলবার মানুকা ওভালে ওয়ান-ডে’তে ১২ হাজার রানের মালিক হয়েছেন বিরাট কোহলি। আর এই মাইলফলক ছোঁয়ার পথে ব্যাটিং গ্রেট সচিন তেন্ডুলকরের রেকর্ড ভেঙ্গেছেন বর্তমান ভারত অধিনায়ক। আর সচিনের রেকর্ড ভেঙে নতুন মাইলফলক স্পর্শ করায় বিরাটের প্রশংসায় পঞ্চমুখ আরেক কিংবদন্তি সুনীল গাভাসকর।

টেস্ট ক্রিকেটে প্রথম ১০ হাজার রানের মালিক এপ্রসঙ্গে জানিয়েছেন, ওয়ান-ডে ক্রিকেটার হিসেবে বিরাট কোহলির বিবর্তন এবং নিজেকে ফিট রাখার জন্য ও যা যা করেছে সেগুলোকে অসাধারণ বললেও কম বলা হয়।

গাভাসকরের কথায়, ‘ক্রিকেটের সবক’টি ফর্ম্যাটেই ওর বিরাট পারফরম্যান্স। একজন অনুর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটার থেকে ও ব্যাটসম্যান হিসেবে যেভাবে নিজেকে পরিপক্ক করেছে সেটা দুর্দান্ত। নিজের খেলার উন্নতির জন্য পাশাপাশি একজন সুপারফিট ক্রিকেটার হওয়ার জন্য ও যা যা ত্যাগ করেছে সেটা অসাধারণ। ও কেবল তরুণ প্রজন্মের কাছেই অনুপ্রেরণা নয়, যারা নিজেকে ফিট রাখতে চায় ও তাদেরও অনুপ্রেরণা।’

গাভাসকর আরও বলেন, ‘১২ হজার রান পূর্ণ করার পর ও যখন হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করল আমি তখন ভাবছিলাম ২৫১ ওয়ান-ডে’তে ৪৩টি শতরান এবং ৬০টি অর্ধশতরান ওর ঝুলিতে। অর্থাৎ ২৫১ ম্যাচের মধ্যে ১০৩টি ম্যাচে ও পঞ্চাশোর্ধ্ব রান করেছে। এটা এককথায় অভাবনীয়।

আমার মনে হয় না এমনটা আগে কেউ করেছে বলে। ওর ধারাবাহিকতা, অর্ধশতরানকে শতরানে কনভার্ট করার ক্ষমতা অবিশ্বাস্য। এটাকে অসাধারণ বললেও কম বলা হয়। আমাদের বিষয়টাকে সেলিব্রেট করা উচিৎ। আমি পরবর্তী হাজার রানের দিকে তাকিয়ে রয়েছি। আশা করি ৫-৬ মাসের মধ্যে সেটা চলে আসবে।’

বুধবার মানুকা ওভালে অজিদের বিরুদ্ধে তৃতীয় ওয়ান-ডে ম্যাচে ২৩ রান করে ১২ হাজার রানের মাইলস্টোন পৌঁছতেই সচিনের রেকর্ড ভাঙেন কোহলি৷ এতদিন ওয়ান ডে ক্রিকেটে দ্রুততম ব্যাটসম্যান হিসেবে ১২ হাজার রানে পৌঁছনোর রের্কড ছিল মাস্টার ব্লাস্টারের দখলে৷ ৩০৯ ম্যাচে ৩০০ ইনিংসে ১২ হাজার রানে পৌঁছেছিলেন সচিন৷ আর বিরাট ২৫১ ম্যাচে ২৪২ ইনিংসে ১২ হাজার রানের মাইলস্টোন ছুঁয়ে ফেললেন৷ সচিনের থেকে ৫৮টি ইনিংস কম খেলে নয়া কীর্তি গড়েন ভারত অধিনায়ক৷

এর আগে রবিবার বিশ্বের ষষ্ঠ ক্রিকেটার হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২২ হাজার রানে পৌঁছেছিলেন বিরাট৷ সচিন ছাড়া বাকি চার ক্রিকেটার, যাঁরা এই মাইলস্টোন ছুঁয়েছেন তাঁরা হলেন অস্ট্রেলিয়ার রিকি পন্টিং (৩২৩ ম্যাচে, ৩১৪ ইনিংস), শ্রীলঙ্কার কুমার সঙ্গাকারা (৩৫৯ ম্যাচে, ৩৩৬ ইনিংস), শ্রীলঙ্কার সনৎ জয়সূর্য (৩৯০ ম্যাচে, ৩৭৯ ইনিংস) এবং শ্রীলঙ্কার মাহেলা জয়বর্ধনে (৪২৬ ম্যাচে, ৩৯৯ ইনিংস)৷


সুত্র : কলকাতা২৪x৭

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য