পরমাণু বিজ্ঞানীর পর হত্যা করা হল ইরানের সেনাবাহিনীর কমান্ডারকে

পরমাণু বিজ্ঞানীর পর হত্যা করা হল ইরানের সেনাবাহিনীর কমান্ডারকে
Image source

শীর্ষ ইরানি পরমাণু বিজ্ঞানীর হত্যার রেশ না কাটতেই এবার খুন করা হয়েছে ইরানের রেভলিউশনারি গার্ডস–এর এক প্রভাবশালী কমান্ডারকে। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, গত শনিবার ইরাক ও সিরিয়া সীমান্তে এয়ার স্ট্রাইকে মৃত্যু হয় ইরানের সেনাবাহিনীর এক কমান্ডারের। তাঁর নাম জানা যায়নি।

ইরাকের প্রতিরক্ষা আধিকারিকদের উদ্ধৃত করে জানানো হয়েছে, ইরাক সীমান্তে সিরিয়ার দের এজ–জর প্রদেশে গাড়িতে দেহরক্ষীদের সঙ্গে সফর করছিলেন ওই কমান্ডার। তখনই তাঁদের উপর মিসাইল হামলা চালানো হয়।

ঘটনাস্থলেই ওই কমান্ডার ও তাঁর তিন দেহরক্ষীর মৃত্যু হয়। বিশ্লেষকদের মতে, এই হামলার নেপথ্যে রয়েছে আমেরিকা ও ইজরায়েল। ড্রোন দিয়ে এমন সঠিকভাবে হামলা চালাতে গেলে যে পরিমাণের ‘ইন্টেলিজেন্স ইনপুট’ বা গোপন খবর ও পরিকাঠামোর প্রয়োজন তা সংগ্রহ করার মতো ক্ষমতা সিআইএ ও মোসাদের রয়েছে।

এদিকে, মুসলিমের হত্যা মধ্যপ্রাচ্যে পরিস্থিতি আরও ঘোরাল করে তুলবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। কারণ, একের পর এক শীর্ষ আধিকারিকদের হত্যা চুপচাপ মেনে নেবে না ইরান।

কিছুদিন আগেই তেহরানের রাস্তায় সে দেশের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসিন ফাখরিজাদেহকে অতর্কিতে হামলা চালিয়ে হত্যা করে অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীরা। এই ঘটনায় ইজরায়েলের হাত রয়েছে বলে সরাসরি অভিযোগ করেছে ইরান। এরপর এই কমান্ডারকে হত্যা করা হল।


সুত্র : আজকাল

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য