আইপিএলে ‘উদাসীন’ ছিলেন কোহলি : শোয়েব আখতার

আইপিএলে ‘উদাসীন’ ছিলেন কোহলি : শোয়েব আখতার
Image source

এবারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি সমালোচনা হয়েছে রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর অধিনায়ক বিরাট কোহলির অধিনায়কত্বের ব্যাপারে। নিজ দলকে প্লে-অফে তুললেও, আরও একবার শিরোপা জেতাতে না পারার দায় পুরোটাই দেয়া হয়েছে অধিনায়ক কোহলির ঘাড়ে।

টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই দারুণ খেলছিল কোহলির ব্যাঙ্গালুরু, ছিল পয়েন্ট টেবিলের ওপরের দিকে। কিন্তু শেষের পাঁচটি ম্যাচ হেরে তারা বিদায় নিয়েছে চতুর্থ হয়ে। অন্যদিকে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রোহিত শর্মার নেতৃত্বাধীন মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। রোহিতের অধীনে এ নিয়ে পাঁচবার আইপিএল শিরোপা জিতল মুম্বাই।

তাই চতুর্দিকে জোর দাবি উঠেছে যে, আইপিএলে পুরোপুরি ব্যর্থ, আট আসরে অধিনায়কত্ব করেও কোনো শিরোপা না থাকা কোহলিকে বাদ দিয়ে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে যেন রোহিতকে অধিনায়কত্ব দেয়া হয়। তবে সহসাই তা হচ্ছে না। কেননা অস্ট্রেলিয়া সফরে ভারতীয় দলের নেতৃত্বে থাকছেন কোহলিই।


ফেসবুক পেজে আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন

সবাই সমালোচনা করলেও, আইপিএলে কোহলির অধিনায়কত্বের ব্যর্থতার একটি কারণ খুঁজে বের করেছেন পাকিস্তানের সাবেক পেসার, রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেসখ্যাত শোয়েব আখতার। তার মতে, পুরো আইপিএলে কোহলির মধ্যে একধরনের উদাসীনতা ও একঘেয়েমিতা। যা কি না কোহলির সেরা বের করে আনতে বড় বাধা ছিল।

ভারতের অধিনায়কত্ব বদলের আলোচনায় যোগ দিয়ে শোয়েব বলেছেন, ‘এ বিষয়ে আমার মন্তব্য খুবই সাধারণ। আমি জানি, কোহলি সবসময় নিজের দলকে এগিয়ে নিতে মুখিয়ে থাকে। তবে এটা পুরোটাই নির্ভর করে সে কতটা ক্লান্তিবোধ করছে। গত ২০১০ সাল থেকে সে টানা খেলে চলেছে। তার নামের পাশে রয়েছে ৭০টি সেঞ্চুরি ও রানের পাহাড়।’

দ্য নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেয়া এ সাক্ষাৎকারে কোহলির জন্য একটি পরামর্শ রেখে শোয়েব আরও বলেন, ‘কোহলি যদি নিজের মধ্যে অনেক ক্লান্তি অনুভব করে, তাহলে তার উচিৎ অন্তত একটি ফরম্যাটে রোহিতের কাছে অধিনায়কত্ব হস্তান্তর করা। তিন ফরম্যাটের চাপ কঠিন কাজ।’

এসময় কোহলির মধ্যে আসা ক্লান্তিবোধের অন্যতম কারণ হিসেবে বায়ো সিকিউর বাবলের কথা উল্লেখ করেছেন শোয়েব। দীর্ঘদিন ধরে একই জায়গায় আবদ্ধ থাকাটা মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর প্রভাব ফেলেছে বলে মনে করেন শোয়েব। তার মতে, কোহলি বিশ্বের অন্যতম সেরা ফিটনেসের খেলোয়াড় হলেও, বর্তমানে সেটা দেখা যাচ্ছে না।


[ আরও পড়ুন : টেস্ট সিরিজের আগে সুখবর!‌ নেটে ব্যাটিং শুরু ঋদ্ধির, ফিট হচ্ছেন ইশান্ত ]


রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেসের ভাষ্য, ‘আইপিএল চলাকালীন সময়ে কোহলির মধ্যে একধরনের উদাসীনতা ও একঘেয়েমিতা স্পষ্ট দেখতে পেয়েছি আমি। এটা বায়ো বাবল পরিস্থিতির কারণে হতে পারে। যা হয়তো তার জন্য ক্লান্তিকর। সে নিজে কেমন বোধ করছে এটাও দেখতে হবে। ওদিকে রোহিতও অধিনায়কত্বের জন্য প্রস্তুত আছে।’


সুত্র : জাগোনিউজ২৪

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য