একঘেয়ে জায়গাতেও আনন্দ খুঁজে পাবেন যেভাবে

একঘেয়ে জায়গাতেও আনন্দ খুঁজে পাবেন যেভাবে
Image source

একজন ভ্রমণপাগল মানুষ প্রতিটি জায়গাতেই আনন্দ খুঁজে পান। অথবা বলা যায়, নিজের রুচির সাথে মিলিয়ে আনন্দ পাওয়া যায় এমন সব জায়গাকেই ভ্রমণের জন্য বেছে নেন তারা। কিন্তু প্রত্যেক ভ্রমণকারীকে কখনো না কখনো এমন পরিস্থিতিতে পড়তে হয় যখন বেড়ানোটা আনন্দের না হয়ে হয় খুবই একঘেয়ে।

এই যেমন ধরুন, কোন ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে দেশের বাইরে গেছেন। বা পরিবারের কোন কাজে আপনাকে যেতে হচ্ছে কোথাও। নিজের ইচ্ছার বিরুদ্ধে এমন ভ্রমণ আনন্দদায়ক না হবারই কথা। আবার অনেক সময় দীর্ঘ যাত্রা ক্লান্তি তৈরি করে, একঘেয়েমিতা বাড়ায়।

কী করবেন তখন? প্রকৃতপক্ষে, কোন জায়গাই কিন্তু একঘেয়ে নয়। চাইলেই এর মাঝেও আনন্দ পেতে পারেন আপনি।


নতুনের আনন্দ

বেড়ানো মানেই তো আর সবাই যেখানে যায় সেখানেই যেতে হবে এমন কোন কথা নেই। জনপ্রিয় ভ্রমণ স্থলের বাইরে জায়গাটির ভিন্ন সৌন্দর্য থাকতে পারে। আপনি যেখানে আছে তার কাছেই হয়ত আছে এমন কোন জায়গা যা বিদেশী ভ্রমণকারীরা চেনেনই না। স্থানীদের কাছে খোঁজ নিন, ঘুরে আসুন জানা-শোনার বাইরে নতুন কোথাও থেকে।


খাবারের দোকান

নতুন দেশের সংস্কৃতিকে বোঝার জন্য সবচেয়ে ভালো উপায় হলো তাদের খাবারের দোকানে যাওয়া। ট্যুরিস্ট হোটেল বা রেস্টুরেন্ট নয় স্থানীয় খাবারের দোকানে যান। আপনার প্রিয় খাবার কি? আইসক্রীম? পানীয় কি? কফি? তাহলে এমন কোন বিশেষায়িত রেস্তরাঁ খুঁজে নিন যেখানে কাটবে চমৎকার কিছু সময়।

সিনেমা দেখুন

সিনেমাহল আপনাকে দিতে পারে মজার অভিজ্ঞতা। সারাদিন কাজের ব্যস্তাতা থাকলে রাতে চলে যান সিনেমা হলে। ভিন দেশে বসে তাদের বড় পর্দায় অভিনয় উপভোগ করুন।


ঘুরে বেড়ান

নতুন একটা জায়গায় ঘুরে বেড়াতেও তো মজা। নতুন নতুন রাস্তায় ঘুরে বেড়ান, মানুষের সাথে মিশুন। দেখবেন আপনার এই একঘেয়ে ভ্রমণ অন্য যেকোন ভ্রমণের চেয়ে বেশিই বৈচিত্রময় হয়েছে। আপনি এত কিছু দেখেছেন, জেনেছেন যা আপনি কখনো ভাবেনও নি। কাজের সাথে এমন বাড়তি পাওয়া কার না ভালো লাগবে?

হাতে কিন্তু অনেক সময়

আপনার যখন বিশেষ কিছু ভ্রমণ করে দেখার টার্গেট নেই, তখন আপনার হাতে কিন্তু অনেক সময়। আপনি অনেক কিছুই করতে পারেন। শপিং মলে ঘুরে বেড়ান। শহরের যাদুঘরে যান। শহরতলী থেকে বেরিয়ে আসুন সময় পেলেই।


সুত্র : দেশেবিদেশে

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য