দিশেহারা পাকিস্তান, ভারতীয় সেনার প্রত্যুত্তরে নিহত কমপক্ষে ১১ পাক সেনা

দিশেহারা পাকিস্তান, ভারতীয় সেনার প্রত্যুত্তরে নিহত কমপক্ষে ১১ পাক সেনা
Image Source


বিনা প্ররোচনায় পাকিস্তান গুলি ছুঁড়লে তাঁদের হাল যে কেমন হতে পারে, তাঁর সুস্পষ্ট উদাহরণ দিল ভারতীয় সেনা। কোনও মতেই পাকিস্তানের কোনও রকম বেয়াদপি যে বরদাস্ত করা হবে না, তা স্পষ্ট বুঝিয়ে দিল ভারত।

প্রথমে বিনা প্ররোচনাতে ভারতীয় সেনা ছাউনি লক্ষ্য করে শেলিং পাকিস্তান সেনা। শুধু ভারতীয় সেনা ছাউনি নয়, সীমান্ত সংলগ্ন গ্রামগুলিকেও টার্গেট করা হয়। পাকসেনার অতর্কিত হামলায় ৭ জনের মৃত্যু হয়। এদের মধ্যে ৩ জন ছিল জওয়ান।

এরপরেই একেবারে খোলা হাতে পাকিস্তান সেনাকে জবাব দিতে শুরু করে ভারতীয় সেনা। ভারী অস্ত্রের সাহায্যে দেওয়া হয় জবাব। ভারতীয় সেনার জবাবে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি সীমান্তের ওপারে। ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় একাধিক বাংকার। সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে ভারতের পালটা প্রত্যুত্তরে নিহত হয়েছে কমপক্ষে ১১ পাক সেনা। আহত হয়েছে আরও ১৬ জন।

পাক শেলিংয়ে যে ৩ জন ভারতীয় সেনা ও নিরাপত্তারক্ষী শহিদ হয়েছেন, এরমধ্যে রয়েছেন বিএসএফ-এর ১ জওয়ান। সাব-ইনস্পেক্টর পদমর্যাদার অফিসারের নাম রাকেশ ডোভাল। তিনি আর্টি রেজিমেন্টে পোস্টেড ছিলেন বলে জানিয়েছে সীমান্তরক্ষী বাহিনী। পাশাপাশি, ভারতীয় সেনার ২ জওয়ানও শহিদ হয়েছে বলে খবর। তাঁরা দু’জনই ৫৯ রেজিমেন্টের সদস্য।

এছাড়া শেলিংয়ে মৃত্যু হয়েছে মহিলা সহ চার সাধারণ নাগরিকেরও। হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়েছে, মৃত্যু হয়েছে ফারুকা বেগম, নাদির হুসেন, তাহির জালাউদ্দিন ও ইরশাদ আহমেদের।

দিওয়ালির আগে হঠাত করে লাগাতার পাকসেনার ভারী শেলিংয়ে সীমান্ত সংলগ্ন গ্রামগুলিতে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়েছে। দ্রুত সীমান্ত সংলগ্ন গ্রামগুলিকে খালি করা হচ্ছে। ইন্টারনেট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।


সূত্র : কলকাতা২৪x৭

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য