‘ছোটলোকদের দিয়ে বাজে কথা বলিয়ে লাভ নেই’, বিস্ফোরক শুভেন্দু

‘ছোটলোকদের দিয়ে বাজে কথা বলিয়ে লাভ নেই’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
Image source

পূর্ব মেদিনীপুর : বাংলার রাজনীতিতে এই মুহূর্তে জল্পনার শীর্ষে শুভেন্দু অধিকারী। তাঁকে নিয়ে বারবার দলবদলের জল্পনা। মন্তব্য, পাল্টা মন্তব্যের চাপান-উতোর। এরই মধ্যে ফের বোমা ফাটালেন শুভেন্দু অধিকারী।

লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ

শুভেন্দু অধিকারীর বক্তব্য নিয়ে এবার ফের জল্পনা তৈরি হলো। শনিবার পূর্ব মেদিনীপুর জেলার নন্দীগ্রামে এক বিজয়া সম্মেলনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন শুভেন্দু। সেখানেই ঝাঁঝালো বক্তব্যে তিনি বলেন, "আমি প্যারাসুটে নামিনি এবং লিফটেও উঠিনি। ছোটলোকদের দিয়ে বাজে কথা বলিয়ে ভেবেছে আমি উত্তর দেব। কুকুর পায়ে কামড়ালে মানুষ কখনো কুকুরের পায়ে কামড়ায় না।"

প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিন আগে সুকৌশলে পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে বার্তা দেন ফিরহাদ হাাকিম। শুভেন্দুর জেলায় দাঁড়িয়েই নাম না করে তাঁকে কটাক্ষের ছলে হুঁশিয়ারি পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রীর। সম্প্রতি কোলাঘাট ও নিউ দিঘার অনুষ্ঠানে শুভেন্দু অধিকারীর বক্তব্য ঘিরে রাজনৈতিক মহলে জোরদার জল্পনা ছড়ায়। শুভেন্দুর সেই মন্তব্যের জবাব দেন ফিরহাদ।


আরও পড়ুন : ৪৮ বছর পর নাকি ধ্বংস হবে পৃথিবী, ধেয়ে আসছে ৩টি ফুটবল মাঠের আকার সমান বিশাল এক গ্রহাণু


নিউ দিঘা ওমেন ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী বলেন, "একক শক্তি দিয়ে কোনও কাজ কেউ করতে পারেন না। স্বামী বিবেকানন্দ এটা বলেছিলেন। স্বামী বিবেকানন্দ বলেছিলেন আমি, আমি করা হল সর্বনাশের মূল।" শুভেন্দু অধিকারীর এই মন্তব্য ঘিরে জোরদার জল্পনা শুরু হয় রাজ্য রাজনীতিতে।

দলের তরফে প্রকাশ্যে এব্যাপারে শুভেন্দুকে কেউ কিছু না বললেও এবার তাঁকে নাম না করে কার্যত হুঁশিয়ারি দিয়ে গেলেন তৃণমূলের অন্যতম শীর্ষ নেতা তথা রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। শুভেন্দু অধিকারীর সাম্প্রতিক মন্তব্য নিয়ে ফিরহাদ লহাকিমকে প্রশ্ন করেছিলেন সাংবাদিকরা।

লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ

উত্তরে নাম না করে শুভেন্দুকে কটাক্ষ করলেন ফিরহাদ। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কবিতার লাইন তুলে ধরে ফিরহাদ পরোক্ষে বিঁধলেন শুভেন্দুকে। ফিরহাদ হাকিম বলেন, "পথ ভাবে আমি দেব, রথ ভাবে আমি, মূর্ত্তি ভাবে আমি দেব, হাসে অন্তর্যামী।"

কার্যত এদিন নাম না করে ফিরহাদের এহেন মন্তব্যেরই জবাব দিলেন শুভেন্দু অধিকারী। এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিকমহল।


সুত্র : কলকাতা২৪x৭

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য