ভারতে কোভ্যাক্সিন পরীক্ষায় সাফল্য, বাঁদরের দেহে তৈরি হল অ্যান্টিবডি

ভারতে কোভ্যাক্সিন পরীক্ষায় সাফল্য, বাঁদরের দেহে তৈরি হল অ্যান্টিবডি
Image source - theweek.in

অক্সফোর্ডের তৈরি টিকার উদ্বেগের মাঝেই সুখবর দিল ভারতের প্রথম সারির ভ্যাক্সিন নির্মাতা সংস্থা ভারত বায়োটেক। দেশে এখন দ্বিতীয় পর্বের টিকার ট্রায়াল চালাচ্ছে হায়দ্রাবাদের এই সংস্থা। তারা মোটামুটি সাফল্যের পথে এগোচ্ছে। মানুষের শরীরে করোনা টিকা কোভ্যাক্সিনের পাশাপাশি প্রানীদের শরীরেও টিকার সেফটি ট্রায়াল করছিল ভারত বায়োটেক। যা ফলাফল এসেছে তা কিন্তু যথেষ্ট ইতিবাচক।

ভারত বায়োটেক টুইট করে জানিয়েছে যে তাদের তৈরি টিকা কোভ্যাক্সিনের এই মুহূর্তে দেশের দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল চলছে এবং দেশের ১২ টা হাসপাতালে একসঙ্গে ট্রায়াল চলছে। তার মধ্যে বিভিন্ন রাজ্যের এইমস(AIIMS) গুলো রয়েছে।

এই দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালে মানুষের উপর ভ্যাক্সিন প্রয়োগের পাশাপাশি প্রানীদের উপরও পরীক্ষামূলক প্রয়োগ চালাচ্ছিল। সেক্ষেত্রে ২০টি রেসাস প্রজাতির বাঁদরকে বেছে নেওয়া হয় এবং এই ২০টি বাঁদরকে ৪টি দলে ভাগ করা হয় ও চার ধরনের ডোস দেওয়া হয়। শূন্য থেকে চোদ্দদিনের ব্যবধানে এই টিকার ডোসগুলো বাঁদর গুলোর দেহে প্রয়োগ করা হয়। 

তারপর আজকে তারা টুইটে জানাচ্ছে যে প্রত্যেকটি বাঁদরের দেহে কিন্তু অ্যান্টিবডি তৈরির প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এছাড়াও বলা হচ্ছে যে এই প্রয়োগের পর প্রত্যেকটি বাঁদর শারীরিক ভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছে। কোনোপ্রকার শ্বাস যন্ত্রের রোগ বা নিমুনিয়া রোগ ধরা পড়েনি। এইসময় এদের নাক, মুখ ও গলা থেকে যেসব নমুনা গুলো পাওয়া গেছে টিকা প্রয়োগের পর সেখানে নতুন করে ভাইরাসের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। যার ফলে এই ট্রায়াল অত্যন্ত সফল বলে ভারত বায়োটেক দাবি করছে।

একই সঙ্গে মানুষের উপরও এই ট্রায়াল চলছে। এই মুহূর্তে যখন অক্সফোর্ডের তৈরি টিকার ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল থমকে যাওয়ার একটা খারাপ খবর রয়েছে সেখানে দাড়িয়ে ভারত বায়োটেকের এই সাফল্যের দাবি কিন্তু আশা জাগাচ্ছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য