সপ্তাহের প্রথম দিন থেকেই বাজারে ঢুকতে শুরু করেছে পদ্মার ইলিশ। জেনে নিন দাম সহ বাকি তথ্য ও চেনার উপায়

 

সপ্তাহের প্রথম দিন থেকেই বাজারে ঢুকতে শুরু করেছে পদ্মার ইলিশ। জেনে নিন দাম সহ বাকি তথ্য ও চেনার উপায়
Image source - oneindia

বহু প্রতীক্ষার পর অবশেষে পদ্মার ইলিশ এল রাজ্যে। সোমবার থেকেই রাজ্যে ঢুকতে শুরু করেছে বাংলাদেশের পদ্মার ইলিশ। হাওড়া পাইকারি বাজারে এসে পড়েছে কয়েক টন ইলিশ। এক কিলোগ্রামের উপর ইলিশের পাইকারি দাম পড়ছে ১৪০০ টাকা। 

এক কিলোগ্রামের কম ইলিশের দাম ৮০০ টাকা। সীমান্ত পেরিয়ে আজ প্রায় ৩০ টন বাংলাদেশি ইলিশ এসে পড়েছে হাওড়া পাইকারি বাজারে। এরকম প্রায় একমাস ধরে ইলিশ আসতেই থাকবে। বাংলাদেশ সরকার প্রায় ১৫০০ মেট্রিক টন ইলিশ সরবরাহের অনুমতি দিয়েছেন ভারতীয় মৎস্য রপ্তানিকারকদের।

বিক্রেতা পিন্টু দাসের কথায় বাজারে মাছ ঢুকলেও দাম কমছে না রুপোলী ফসলের। মোটামুটি ৫০০-৬০০ ওজনের মাছ ১১০০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। এক কিলো ওজনের মাছ ১৫০০ টাকা এবং দেড় কিলো ওজনের মাছ ১৮০০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে।

বাংলাদেশি পদ্মার ইলিশ মাছ চেনার উপায় কী? এই ইলিশের আঁশ অন্যান্য ইলিশের থেকে বেশি চকচকে, ঘাড় মোটা, মাথার দিকটা একটু হলুদ। নদীর মাছ হওয়ার কারনে সাগরের মাছের থেকে আকৃতিতেও কিছুটা তফাত রয়েছে।

খুচরো বাজারে বাংলাদেশের ইলিশের দাম কত? বেলেঘাটা রাসমণি বাজারে কিলো প্রতি ইলিশের দাম ১৬০০ থেকে ২০০০ টাকা। দেড় কিলো ওজনের ইলিশের দাম প্রায় ৩০০০ টাকার কাছাকাছি পৌঁছে যাচ্ছে।

পদ্মার ঝকঝকে ইলিশ এসে পড়ায় রাজ্যবাসীর কাছে আনন্দের খবর বটে। কিন্তু পদ্মার এই রুপোলী ফসলের দাম এখনো সাধারনের নাগালের বাইরে বলে বিক্রেতাদের বক্তব্য।

তবে আশার খবর এই যে তারা এও জানিয়েছেন এই ভাবে সরবরাহ চলতে থাকলে খুব তাড়াতাড়ি ইলিশের দাম সাধারনের আয়ত্তের মধ্যে আসবে বলে তারা আশাবাদী।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য