পুজোর আগে লোকাল ট্রেন চালু করার কথা ভাবছে রাজ্য। মেট্রোর হাল দেখার পর সিদ্ধান্ত?

পুজোর আগে লোকাল ট্রেন চালু করার কথা ভাবছে রাজ্য। মেট্রোর হাল দেখার পর সিদ্ধান্ত?
Image source - eisamay

করোনা সংক্রমণের ফলে লকডাউনের জেরে প্রায় ৬ মাস বন্ধ লোকাল ট্রেনের চাকা। কবে চলবে লোকাল ট্রেন? এই প্রশ্ন সবার। ১৫ই সেপ্টেম্বর থেকে মেট্রো রেল পরিষেবা চালু হতে চলেছে। এবার কী তবে লোকাল ট্রেনের পালা। পরিষেবা শুরুর তোড়জোড় চলছে।

মুম্বাইতে কিন্তু ইতিমধ্যেই নির্দিষ্ট বিধি মেনে কিছু কিছু ট্রেন চালু হয়েছে। ঠিক কীভাবে মুম্বাইয়ে ট্রেন চলছে? অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবার সঙ্গে যারা যুক্ত তারাই এখন ট্রেনে উঠতে পারছে। এই মুহূর্তে সেখানে ৭০০টি ট্রেন চলছে। ১৪০টির মধ্যে মাত্র ৫০টি স্টেশনে ট্রেন থামছে। ৮৫ লক্ষ যাত্রীর মধ্যে শুধুমাত্র সাড়ে ৩ লক্ষ যাত্রী যারা অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত তাদের জন্যেই আপাতত এই ব্যবস্থা। যাত্রীদের জন্য বিশেষ কিউ-আর কোড (QR Code) এর ব্যবস্থা করেছে মহারাষ্ট্র সরকার।

মুম্বাই মডেলে আমাদের রাজ্যেও লোকাল ট্রেন চালাবার কথা ভাবা হচ্ছে। তাহলে সমস্যাটা কোথায়? সমস্যা হচ্ছে বহু স্টেশনে নির্দিষ্ট প্রবেশপথ ছাড়াও খোলা জায়গা দিয়ে প্রবেশ করা যায়। আমরা অনেকেই স্টেশনের আশপাশ দিয়ে উঠে পড়ি। অনেক জায়গায় স্টেশনের দুদিকেই খোলা জায়গা থাকে। খোলা জায়গা দিয়ে নিরন্তর যাত্রীরা যাওয়া আসা করেন। সবাই নির্দিষ্ট গেট ব্যবহার করে তা কিন্তু নয়। সেক্ষেত্রে ভিড় সামলানো কতটা সম্ভব হবে তা দেখার বিষয়।

যদি মুম্বাই মডেলে কিউ আর কোড ব্যবহার করা হয় তাহলে কোন জায়গায় চেক হবে এবং কারা কারা চেক করবেন তা নিয়ে কিন্তু প্রশ্ন উঠছে। 

লোকাল ট্রেন চালাবার বিষয়টি নিয়ে রাজ্যকে চিঠি দিয়েছে রেল। খুব তাড়াতাড়ি ট্রেন চালানো নিয়ে রাজ্যের সঙ্গে বৈঠক করতে চায় রেল। দক্ষিণ-পূর্ব রেলের জেনারেল ম্যানেজার সাংবাদিক সম্মেলনে জানিয়েছেন যে তারা খুব দ্রুত লোকাল ট্রেন চালাতে উদ্যোগী। মেট্রো পরিষেবা দেখে তারা এবিষয় সিদ্ধান্ত নেবে। পাশাপাশি রাজ্য কীভাবে লোকাল ট্রেন চালাতে চাইছে সেই নিয়েও আগামিদিনে বৈঠক করতে চাইছে রেল।

ইতিমধ্যেই এবিষয়ে যাবতীয় চিন্তাভাবনা শুরু হয়ে গেছে। এর মধ্যে অন্যতম যে তারা টিকিট কাটার যে ব্যবস্থাটিকে ডিজিটাল পেমেন্ট করার উপর জোর দিতে চাইছেন। যাতে স্পর্শ বা ছোঁয়াছুঁয়ির বিষয়টি এড়ানো যায়। তবে মেট্রো চালুর পরেই কিন্তু তারা রাজ্যের সঙ্গে বৈঠক করবে বলে জানিয়েছে লোকাল ট্রেন কর্তৃপক্ষ।

এক্ষেত্রে বলা দরকার মুম্বাইয়ে যে মডেলে লোকাল ট্রেন চালু করা হয়েছে। সেখানেও মূল উদ্যোগ ছিল সেখানকার সরকারের। মুম্বাই রাজ্য সরকার রেলকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছিল যে তারা ট্রেন চালু করতে চায়। আমরা জানি যে ইতিমধ্যেই আমাদের রাজ্য সরকারের তরফ থেকেও রেলের কাছে চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে যে এ রাজ্যেও লোকাল ট্রেন চালানো হোক।

তবে কি সত্যিই পুজোর আগে চলবে লোকাল ট্রেন। এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে মেট্রো পরিষেবার দিকে তাকিয়ে এখন রাজ্য। তবে সদুত্তর এখনো অজানা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য