অক্সিজেনের অভাবে মেডিকেলে মৃত্যু হল কলেজ ছাত্রীর, আবারও অভিযোগের কাঠগড়ায় মেডিকেল কলেজ

অক্সিজেনের অভাবে মেডিকেলে মৃত্যু হল কলেজ ছাত্রীর, আবারও অভিযোগের কাঠগড়ায় মেডিকেল কলেজ
মৃতা ছাত্রীর কলেজ পরিচয় পত্র


কিছুদিন আগেই রোগী মৃত্যুর ঘটনা চেপে রাখার মতো অভিযোগ উঠেছিল মেডিকেলের বিরুদ্ধে। আবারও অমানবিকতার চরম নজির গড়ল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। চিকিৎসার সব ব্যবস্থা আছে তবু মিলল না অক্সিজেন। যন্ত্রণায় ছটফট করে মৃত্যু হল কলেজ ছাত্রীর। অভিযোগ মানবতার খাতিরেও এগিয়ে আসেনি কোনো স্বাস্থ্য কর্মীর। মেডিকেল কলেজে অন্য আরেকজন রোগীর ক্যামেরা বন্দি গোটা ঘটনা।

মেয়ের শেষ মুহূর্তের ছবি দেখে ডুকরে উঠেছে গোটা পরিবার। অনেক খোঁজের পর মেডিকেল কলেজে ফোন করে জেনেছিলেন আদরের মেয়ে আর নেই। কাশীপুরের ঘিঞ্জি গলির ছোট্ট ঘরে এখন শুধুই অন্ধকার। দিন আনা দিন খাওয়া পরিবার অনেক কষ্টে মেয়েকে কলেজে ভর্তি করেছিলেন। মহারানী কাশীশ্বরী কলেজের বাণিজ্য বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিল সে।

মেয়ে সুস্থ হয়ে উঠবে এই আশাতেই হাসপাতালে দিয়ে এসেছিলেন বাবা। কিন্তু সেখানেই চরম অমানবিকতার অভিযোগ।

৪ঠা সেপ্টেম্বর শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত কলেজ ছাত্রীকে মেডিকেলে পাঠায় আর জি কর হাসপাতাল। রাতেই মেডিকেলের গ্রিন বিল্ডিংয়ের ১০৯ নম্বর বেডে ভর্তি করা হয়। অভিযোগ রাতে বারবার খাবার চেয়েও খাবার পাননি ওই ছাত্রী। হাসপাতালে ভর্তি অন্যরাই তাকে খাবার দেয় বলে দাবি।

সকাল সাড়ে ৬ টায় শুরু হয় প্রবল শ্বাসকষ্ট। ওই ওয়ার্ডে ভর্তি অন্য রোগীদের অভিযোগ বারবার বলার পরেও এগিয়ে আসেননি কেউ। এই পরিস্থিতিতে ঘটনার ভিডিও তোলেন ওই ওয়ার্ডে ভর্তি রোগী দোলন অধিকারী।

৭.৪৫ মিনিট নাগাদ মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়েন ওই কলেজ ছাত্রী। শনিবার হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন দোলন। বাড়ি ফিরেই ভিডিও সামনে এনেছেন তিনি। শেষ পর্যন্ত মেয়ের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পেয়েছে পরিবার। করোনা হয়নি ওই কলেজ ছাত্রীর।

কিন্তু কার গাফিলতিতে শিক্ষক দিবসের সকালে মৃত্যু হল এক ছাত্রীর। নিরুত্তাপ মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য