কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা এবার বাড়ি বসেই, বই খুলেই পরীক্ষার সিদ্ধান্ত

 

কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা এবার বাড়ি বসেই, বই খুলেই পরীক্ষার সিদ্ধান্ত
Image credit
করোনা আবহে অনলাইন ক্লাস, অনলাইন কোর্স এবং অনলাইনে পরীক্ষা দেওয়া এটা এতদিনে সকলের মোটামুটি অভ্যাস হয়ে গেছে। কিন্তু এবার কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষাও ঘরে বসে দেওয়া যাবে। এমনকি এই পরীক্ষায় থাকছে বই খুলে লেখার সংস্থানও। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো বাড়িতে বসে পরীক্ষা দেওয়ার পথে হাঁটতে চলেছে যাদবপুর, বিদ্যাসাগর এবং রায়গঞ্জ এর মতো অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় গুলিও।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাধ্যায় সোনালি চক্রবর্তী মুখোপাধ্যায় বলেছেন, "সবাই বাড়িতে বসেই পরীক্ষা দেবে, বাড়িতে বসেই লিখছে। এটাকে ওপেন বুক বা বই খুলে পরীক্ষাই বলা যায়।"

আমেরিকা এবং ইউরোপের মতো দেশ গুলিতে এই ব্যবস্থা নতুন নয়। কোভিড পরিস্থিতিতে এবার বাড়িতে বসে পরীক্ষা নিয়েছে লন্ডন স্কুল অফ ইকোনমিক্স। এবার সেই পথেই হাঁটল রাজ্য।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে প্রায় ১৫০ টি কলেজ। স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পরীক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় লক্ষাধিক। ফাইনাল পরীক্ষা হবে ১ থকে ১৮ ই অক্টোবরের মধ্যে, ফলপ্রকাশ হবে ৩১ শে অক্টোবরের মধ্যে।

কীভাবে হবে এই পুরো প্রক্রিয়া ?

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত পুরো পরীক্ষা হবে অনলাইনে। ইমেইল বা হোয়াটস অ্যাপের মাধ্যমে প্রশ্নপত্র পাবে পরীক্ষার্থীরা। প্রশ্নপত্র পাবার পর উত্তর লিখে জমা দেওয়ার সময় হবে ২৮ ঘণ্টা। বাড়িতে বসেই বই খুলে পরীক্ষা দেওয়া যাবে।

উত্তরপত্র দেখবেন পরীক্ষার্থীর নিজের কলেজর শিক্ষকরা। যাদের অনলাইন পরিষেবার সুযোগ নেই তারা খাতায় উত্তর লিখে জমা দেবেন কলেজে।


সুপ্রিম কোর্ট স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইনাল পরীক্ষা নিতেই হবে। সেই প্রেক্ষাপটেই এই ধরনের সিদ্ধান্ত।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য